Wednesday, October 5, 2022

মেয়াদ উত্তীর্ন মশা নিধন কীটনাশক ঔষধ স্প্রে কে ঘিরে কাঠগড়ায় বিষ্ণুপুর পুরসভা

বাঁকুড়া:   মেয়াদ উত্তীর্ন মশা নিধন কীটনাশক ঔষধ স্প্রে কে ঘিরে কাঠগড়ায় বিষ্ণুপুর পুরসভা।মেয়াদ উত্তীর্ন হয়েছে দু বছর আগে। আর সেই মেয়াদ উত্তীর্ন মশা নিধন কীটনাশক স্প্রে কে ঘিরে বিষ্ণুপুর পুরসভার বিরুদ্ধে উঠল বড়সড় অভিযোগ। সোমবার সকালে এই বিষয় নজরে আসে বিষ্ণুপুর পুরসভার ৮ নং ও ৭ নং ওয়ার্ডে।

জানা গেছে সোমবার সকালে স্থানীয় সুপারভাইজার মশা নিধনের জন্য প্যাকেট করা কীটনাশক স্প্রে করতে যান এলাকায়। এরপরে ৮ নং ওয়ার্ডের এলাকাবাসীর নজরে আসে পুরসভার থেকে যে কীটনাশক স্প্রে করতে দেওয়া হয়েছে সেই কীটনাশকের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে ২০২০ সালে। এরপরে এলাকায় ওই মশা নিধন কীটনাশক স্প্রে করা বন্ধ করে দেন এলাকার মানুষ। পাশাপাশি ৭ নং ওয়ার্ডেও একই ঘটনা ঘটে।

মেয়াদ উত্তীর্ন মশা নিধন কীটনাশক ঔষধ স্প্রে কে ঘিরে কাঠগড়ায় বিষ্ণুপুর পুরসভা

আরো পড়ুন :Jangalmahal Weather : আজ ৮/৮/২০২২ কেমন থাকতে পারে জঙ্গলমহলের আবহাওয়া দেখে নিন

সেখানেই ওয়ার্ড কাউন্সিলর মেয়াদ উত্তীর্ন হয়ে যাওয়া কীটনাশক স্প্রে করা বন্ধ করে দেন। এলাকার মানুষের দাবি মশা নিধনের নামে মেয়াদ উত্তীর্ন কীটনাশকের স্প্রে করার অর্থ কি পুরসভার দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছেন তারা। কিভাবে এলাকায় এলাকায় মশা নিধনের মেয়াদ উত্তীর্ন কীটনাশকগুলি সরবরাহ করল বিষ্ণুপুর পুরসভা তা নিয়ে সরব হয়েছে বিষ্ণুপুরবাসী। পুরসভার গাফিলতিকে দায়ী করেছেন এলাকার মানুষজন।

পুরসভার থেকে কিভাবে মেয়াদ উত্তীর্ন কীটনাশকগুলি সরবরাহ করা হচ্ছে তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে পুরসভার বিরুদ্ধে। কিভাবে এই কীটনাশকগুলির ব্যবহারের আগে মেয়াদ উত্তীর্ন হয়ে গেল তা নিয়ে বিষ্ণুপুর পুরসভার ভুমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। পুরসভার দাবি বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

লেটেস্ট খবর

লেটেস্ট খবর

হাতির খবর

জঙ্গলমহল ভ্রমণ