Saturday, August 20, 2022

নয়নজুলি ভরাট করে অবৈধ নির্মান, অভিযোগ পেতেই পুলিশ পাঠিয়ে কাজ বন্ধ করল প্রশাসন। অবৈধ নির্মান নিয়ে নেওয়া হচ্ছে বড়সড় পদক্ষেপ।

নিজস্ব প্রতিনিধি , বাঁকুড়া : নয়নজুলি ভরাট করে অবৈধ নির্মান, অভিযোগ পেতেই পুলিশ পাঠিয়ে কাজ বন্ধ করল প্রশাসন। অবৈধ নির্মান নিয়ে নেওয়া হচ্ছে বড়সড় পদক্ষেপ।

প্রকাশ্যে জাতীয় সড়কের পাশে নয়নজুলি ভরাট করে চলছে অবৈধ নির্মান। অভিযোগ পেতেই নির্মান বন্ধ করতে তৎপর প্রশাসন। বাঁকুড়া শহর লাগোয়া পুয়াবাগান এলাকার ঘটনা। প্রশ্ন উঠছে সরকারী নয়নজুলি কিভাবে দখল হয়ে ব্যাক্তিগত মালিকানা হয়ে বিক্রি হয়ে যাচ্ছে। অনুমতি ছাড়া কিভাবে গড়ে উঠছে নির্মান উঠছে প্রশ্ন। অভিযোগ এক শ্রেনীর জমির দালাল ও এক শ্রেনীর প্রশাসনিক আধিকারিকদের যোগসাজসে সরকারী নয়নজুলি দখল হয়ে গড়ে উঠছে একের পর নির্মান। অভিযোগ পেতেই বড়সড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে প্রশাসন।

Read More : আজ পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ডেবড়া ব্লকে ডেবরা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হলো

বাঁকুড়া ১ নং ব্লকের পুয়াবাগান এলাকায় একটি বেসরকারী ইঞ্জিনীয়ারিং কলেজ সংলগ্ন এলাকায় ৬০ নং জাতীয় সড়কের পাশে নয়নজুলিতেবেআইনী নির্মান কে ঘিরে উঠেছে অভিযোগ। সম্প্রতি এক ব্যাক্তি ওই কলেজের গেটের পাশে নয়নজুলি ভরাট করে নির্মান কার্য্য শুরু করতেই প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

নয়নজুলি ভরাট করে অবৈধ নির্মান, অভিযোগ পেতেই পুলিশ পাঠিয়ে কাজ বন্ধ করল প্রশাসন। অবৈধ নির্মান নিয়ে নেওয়া হচ্ছে বড়সড় পদক্ষেপ।

কলেজ কর্তৃপক্ষের অভিযোগ সরকারী জায়গা অবৈধ ভাবে ভরাট করে নির্মান হয়ে যাচ্ছে বড় বড় দোকান বাড়ি। আস্তে আস্তে করে একের পর নয়নজুলি দখল করে হয়ে গেছে বাড়ি দোকান ঘর। অভিযোগ নয়নজুলির আর অস্তিত্ব নেই এই এলাকায়। সম্প্রতি এই অবৈধ নির্মান চোখে পড়তেই প্রশাসনের কাছে ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানায় কলেজ কর্তৃপক্ষ।জায়গা কিনে রেকর্ড করে বাড়ি তৈরি করছি কোনবেআইনী নির্মান করা হয়নি বলে দাবি করেছেন অভিযুক্ত জমির মালিক।

তবে তিনি এটাও দাবি করেছেন নয়নজুলি নিজের নামে রেকর্ড করেছেন। সবাই যেভাবে নয়নজুলির উপর বাড়ি করেছেন তিনিও সেভাবে করছেন। প্রশাসনের নির্দেশ পেয়ে তিনি কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন বলেও দাবি করেছেন।অভিযোগ পেতেই পদক্ষেপ প্রশাসনের। পুলিশ পাঠিয়ে নির্মান বন্ধ করা হয়েছে। কিভাবে এই অবৈধ নির্মান তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানিয়েছে স্থানীয় ব্লক প্রশাসন। জাতীয় সড়কের আওতায় রয়েছে এই নয়নজুলি তাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা।হয়েছে।

প্রশাসনের নজর এড়িয়ে কিভাবে সরকারী জায়গায় গড়ে উঠছে একের পর এক নির্মান। কিভাবে সরকারী নয়নজুলি ব্যক্তিগত মালিকানা হয়ে রেকর্ড হয়ে যাচ্ছে তা নিয়ে উঠছে নানান প্রশ্ন। এখন দেখার এই বিষয়ে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ কি পদক্ষেপ নেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

লেটেস্ট খবর

লেটেস্ট খবর

হাতির খবর

জঙ্গলমহল ভ্রমণ