Saturday, May 21, 2022

৫ লাখ টাকা না দিলে বাড়ির ছোট ছেলেকে খুন করে দেওয়া হবে, মাওবাদী চিঠি পেলেন বর্ধমানের পরিবার, আতঙ্ক এলাকায়

JJM NEWS DESK :  জঙ্গলমহল থেকে বেশ কিছুটা দূরে পূর্ব বর্ধমান জেলায়, যেখানে মাওবাদীদের কার্যকলাপ খুব একটা শোনাই যায়নি, সেখানেই কিনা এল মাও হুমকির চিঠি! আর তাও যাতা চিঠি নয়, একদম প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া চিঠি। যে চিঠিতে বলা হয়েছে দিতে হবে ৫ লক্ষ টাকা, নাহলেই নাকি পড়বে লাশ।

স্বাভাবিক ভাবেই এহেন হুমকি চিঠিতে যে শুধু একটি পরিবারের সদস্যদের বুকের ভেতর কাঁপুনি ধরেছে তাই নয়, চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে প্রশাসনিক মহলেও। পূর্ব বর্ধমান জেলার উত্তর সদর মহকুমার ভাতার থানার বনপাস গ্রাম পঞ্চায়েতের আমবোনা গ্রামে বাস করে হাজরা পরিবার। সেখানেই শনিবার রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ কেউ বা কারা একটি হুমকি চিঠি দিয়ে আসে। সেই চিঠিতেই বলা হয়েছে, ৫ লাখ টাকা না দিলে বাড়ির ছোট ছেলেকে খুন করে দেওয়া হবে।
৫ লাখ টাকা না দিলে বাড়ির ছোট ছেলেকে খুন করে দেওয়া হবে, মাওবাদী চিঠি পেলেন বর্ধমানের পরিবার, আতঙ্ক এলাকায়

আমবোনা গ্রামের কৃষ্ণা হাজরা নামে ওই মহিলার প্রয়াত স্বামী দেবীপ্রসাদ হাজরা সরকারি কর্মচারী ছিলেন। তিনি বেশ কয়েকবছর আগে পথ দুর্ঘটনায় মারা যান। কৃষ্ণাদেবীর দুই ছেলে। শনিবার রাত সাড়ে দশটা নাগাদ ছোট ছেলে অয়ন হাজরা বাড়ির সদর দরজা বন্ধ করতে যান। তখন তিনি দেখতে পান একটি সাদা খাম পড়ে রয়েছে।

কী লেখা রয়েছে চিঠিতে? পরিবারের সদস্যরা সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘জয় বজরং বলি, আমরা মাওবাদী। আপনার গৃহকর্তা ৪০-৫০ লাখ টাকা রেখে গিয়েছেন। সেই টাকা থেকে আমাদেরকে ৫ লাখ টাকা দেবেন। না হলে বাড়ির ছোট ছেলে অসুবিধায় পড়বে। আর এই টাকাটি আমবোনা গ্রামের বেলতলায় এনে রাখবেন সেখান থেকে সংগ্রহ করে নেওয়া হবে।’

  পুলিশ রাতেই আমবোনা গ্রামে যায়। ওই বাড়ির সামনে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। পুলিশ পরিবারটিকে আশ্বস্ত করে। রাতেই ভাতার থানার পুলিশ আমবোনা গ্রামের হাজরা বাড়িতে আসেন। পুলিশ বিষয়টি নিয়ে আশ্বাস দিয়েছেন হাজরা পরিবারকে। এখন মাওবাদীরা যে টাকা আছে বলে দাবি করেছে তা সঠিক নয় বলেও জানানো হয়েছে পরিবারের তরফে। তাহলে কিসের ভিত্তিতে এই চিঠি?‌ উত্তর খুঁজছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

লেটেস্ট খবর

লেটেস্ট খবর

হাতির খবর

জঙ্গলমহল ভ্রমণ