Wednesday, October 5, 2022

মেদিনীপুরে বনদফতরকে উপেক্ষা করে নির্বিকারে চলছে গাছ কাটা

জোহার জঙ্গলমহল নিউজ ডেস্ক: সমস্ত প্রাণী জগতের বেঁচে থাকার একমাত্র উপাদান হল অক্সিজেন। অক্সিজেন ছাড়া সমস্ত প্রাণীকুল এক নিঃশ্বেসে ধ্বংস হয়ে যেতে পারে। অক্সিজেন ছাড়া এক মূহুর্ত টিকে থাকা সম্ভব নয়। পরিবেশে অক্সিজেনের ভ্রারসাম্য বজায় গাছের ভূমিকা অনবদ্য। শুধু অক্সিজেন দেওয়ায় নয়। বৃষ্টির জন্য জঙ্গলের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। মাটিকে আঁকড়ে রেখে বন্যার হাত থেকে আমাদের রক্ষা করে গাছ। পরিবেশের ভ্রারসাম্য বজায় রাখার জন্য এখন ঘটা করে গাছ লাগানো হচ্ছে। অরণ্য সপ্তাহ এখন প্রায়শই পালন করা হয়ে থাকে। কিন্তু কিছু মানুষজন এই সকলকে উপেক্ষা করে নির্বিকারে গাছ কেটে চলেছেন। গাছ কাটার ফলে যে প্রকৃতি ধ্বংসের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে সে বিষয়ে তাদের কোনো হেলদেল নেই।
এইরকম একটি ঘটনা লক্ষ্য করা গেল মেদিনীপুর বনবিভাগে। বনদফতরকে উপেক্ষা করেই কিছু মানুষজন নির্বিকারে গাছ কেটে চলেছেন। এই রকম চিত্রটি দেখা গেল মেদিনীপুর সদর ব্লকের কঙ্কাবতী গ্রাম পঞ্চায়েতের দেলুয়া গ্রামে। ওই গ্রামের বেশ কয়েকজন মহিলাকে মাথায় করে কাটা শালগাছ বয়ে আনতে দেখা যায়। মূলত বনদফতের দেখভালের অভাবের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে তারা একের পর এক গাছ কেটে চলেছেন। এই সকল মানুষ এখনো বুঝতে পারছেন গাছ কাটার কুফল কি হতে পারে। তাদের প্রশ্ন করা হলে তারা নির্বিকারে বলছেন “বেশ করেছি গাছ কেটেছি আবার কাটবো”। বনদফতর সূত্রে জানা গেছে এত বড়ো জঙ্গল প্রতিটি জায়গায় জায়গায় দেখভাল করা সম্ভব হয়ে উঠছে। মেদিনীপুর বনাধিকারিক পাপন মহন্ত জানিয়েছেন গাছ কাটার সময় ধরা পড়লে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রয়োজনে তাদের বাড়িতে যাওয়া হবে এবং তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দেখুন ভিডিও- 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

লেটেস্ট খবর

লেটেস্ট খবর

হাতির খবর

জঙ্গলমহল ভ্রমণ