Wednesday, October 5, 2022

SBI ঘাটাল শাখা থেকে প্রায় ১৮ কোটি টাকা প্রতারণা, মোবাইল টাওয়ার লোকেশন ট্রাক করে , গ্রেপ্তার গোয়ালতোড়ের যুবক

 

JJM NEWS DESK :   স্টেট ব্যাঙ্কের ঘাটাল শাখা থেকে প্রায় ১৮ কোটি টাকা প্রতারণা। ঘাটাল মহকুমার পুলিশ আধিকারিক অগ্নিশ্বর চৌধুরীর নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী সেই প্রতারণার মূল পাণ্ডাকে আরামবাগ থেকে মঙ্গলবার গভীর রাতে গ্রেপ্তার করল। গ্রেপ্তার হওয়া যুবকের নাম রাজীব বক্সি। রাজীব বক্সির বাড়ি গোয়ালতোড়ে ।
ঘাটাল পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রাজীবকে ঘাটাল আদালতে তোলা হলে তাকে পাঁচ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়। অগ্নিশ্বর চৌধুরীর এই কৃতিত্বের জন্য ঘাটাল মহকুমার মানুষ তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ঘাটাল মহকুমার পুলিশ আধিকারিক বলেন, এই কৃতিত্ব আমার একার নয়। পুরো টিমের। তবে অভিযুক্তকে ধরতে পেরে খুবেই খুশি তিনি।
রাজীব বক্সী SBI এর ঘাটালের ব্রাঞ্চ ম্যানেজার গৌতম দত্ত ও ঐ ব্যাঙ্কের কর্মচারী শ্রীমন্ত দাসকে নিজের পরিচয় গৌতম বন্দ্যোপাধ্যায়, একজন সাইবার সেলের অফিসার হিসেবে দেয়।  প্রথম ঘটনাটি জানা যায় এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহে। গত আর্থিক বছরের হিসেব-নিকেশ শেষ হওয়ার পর স্টেট ব্যাঙ্কের ওই শাখার মাধ্যমে ওয়ান৯৭ কমিউনিকেশন কোম্পানিটি পেটিএম নামে বিখ্যাত। 
শ্রীমন্ত দাস প্রায়শই ব্রাঞ্চ ম্যানেজারের কোড ব্যবহার করে নির্দিষ্ট অ্যাকাউন্ট-এ ঐ টাকা ট্রান্সফার করে দিত। এই ভাবেই পেটিএম এর দিল্লির একটি অ্যাকাউন্ট থেকে মোট ৪২ লক্ষ ২ হাজার ৭০৫ টাকা গায়েব হয়। দিল্লির ব্রাঞ্চ সেই কারচুপি ধরে ফেলে এসবিআই-এর রিজিওনাল ম্যানেজারকে অভিযোগ জানায়।রাজীব সাইবার ক্রাইম সেলের আদলে একটি মেলও তৈরি করেছিল রাজীব।
পুলিস রাজীবকে ধরার জন্য দীর্ঘদিন থেকেই প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছিল। বার বার গোয়ালতোড়ের বাড়িতেও যাওয়া হয়েছিল। কিন্তু কোনও ভাবেই ট্রেস পাওয়া যায়নি। মঙ্গলবার বিশেষ সূত্র ধরে পুলিস জানতে পারে রাজীব আরামবাগে রয়েছে। ঘাটাল মহকুমা পুলিস আধিকারিক পুলিস বাহিনী নিয়ে মোবাইল টাওয়ার লোকেশন ট্রাক করে গোটা এলাকাটি ঘিরে নেন।  ১৯ মে  রাত দু’টো নাগাদ রাজীবকে গ্রেপ্তার করা হয়। 
রিজিওনাল ম্যানেজার গৌতম মুনি তদন্তে দেখেন একাধিক ধাপে ঐ টাকা ঘাটালের একটি ব্রাঞ্চের অ্যাকাউন্ট-এ ট্রান্সফার হয়েছে। ঘাটাল থানায় এফআইআর দায়ের করেন তিনি। তদন্তে উঠে আসে এই ভাবে আগেও টাকা ট্রান্সফার হয়েছে ঘাটাল ব্রাঞ্চের মাধ্যমে। মোট কারচুপির পরিমাণ প্রায় ১৮ কোটি।
ইতিমধ্যে এসবিআই কর্মচারী শ্রীমন্ত দাসকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সাসপেন্ড করা হয়েছে এসবিআই এর ঘাটাল ব্রাঞ্চের ম্যানেজারকে। গোয়ালতোড়ে রাজীবের বাড়ি, গাড়ি বায়জাপ্ত করা হয়েছে। পুলিশ তদন্ত করে দেখছে এই ঘটনায় আর কেউ জড়িত কিনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

লেটেস্ট খবর

লেটেস্ট খবর

হাতির খবর

জঙ্গলমহল ভ্রমণ