Friday, September 30, 2022

৬ ঘণ্টা পর নিজাম প্যালেস ছাড়লেন মমতা, ধৃতদের হেফাজত চাইল সিবিআই

 জোহার জঙ্গলমহল ডেস্ক :  প্রায় ছ’ ঘণ্টা নিজাম প্যালেসের ভেতরে ধরনা দেওয়ার পর অবশেষে বেরিয়ে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বেরোনোর সময়ে মমতা বলেন, রাজ্যের চার নেতামন্ত্রীকে নিয়ে যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার তা আদালতই নেবে।
সোমবার সকাল পৌনে ১১টা নাগাদ নিজাম প্যালেসে প্রবেশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। নারদা কাণ্ডে রাজ্যের দুই মন্ত্রী-সহ চার হেভিওয়েট নেতাকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে সেখানে হাজির হয়েই সরব হন মুখ্যমন্ত্রী। অভিযোগ করেন, আগাম নোটিস ছাড়াই বেআইনি ভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে ফিরহাদ-সুব্রত-মদনদের। সেই সঙ্গে নিজের গ্রেফতারির দাবিও জানাতে থাকেন তিনি।
ইতিমধ্যেই রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় নিজাম প্যালেস চত্বর। কেন্দ্রীয় বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন তৃণমূলকর্মীরা। শুরু হয় ইটবৃষ্টি। বিক্ষোভের আগুন গিয়ে পড়ে রাজভবনেও। সেখানেও ধরনা শুরু করেন তৃণমূলের কর্মী এবং সমর্থকরা।
এর পর প্রায় ৬ ঘণ্টা নিজাম প্যালেসে সিবিআইয়ের ডিআইজির ঘরের সামনে কার্যত ধরনা দেন তিনি। মামলাটি ভারচুয়ালি আদালতে পেশ হওয়ার সময়ও নিজাম প্যালেসেই ছিলেন। এর পরেই সেখান থেকে নবান্নের উদ্দেশে রওনা দেন মুখ্যমন্ত্রী। বেরোনোর সময় তিনি বলেন, ‘আমি কিছু বলব না। এ নিয়ে যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার আদালতই নেবে।’
নকয়েক চার্জশিটে সম্মতি দিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।
জানা গিয়েছে রাজ্যপালের অনুমতি নেওয়ার পর নিজাম প্যালেসে নিয়ে গিয়ে অ্যারেস্ট মেমোতে সই করানো হয়। আজই আদালতে পেশ করা হতে পারে বলেও খবর।
এদিকে, এই মামলায় মুকুল রায়, শুভেন্দু অধিকারীর নাম থাকলেও কেন গ্রেফতার করা হচ্ছে না তাঁদের তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে তৃণমূল। বিজেপি যোগের জন্যই কি ছাড় পেলেন তাঁরা, এমন তোপও দেগেছে তৃণমূল শিবির।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

লেটেস্ট খবর

লেটেস্ট খবর

হাতির খবর

জঙ্গলমহল ভ্রমণ